ঈদকে সামনে রেখে প্রস্তুত সকল প্রেক্ষাগৃহ

গরম তেলে টগবগিয়ে ফুটছে জিলাপি। ইফতারি বানাতে ব্যস্ত কয়েকজন। এই ভবনটির ঠিক ওপরে লেখা ‘জোনাকী’। ইনার সার্কুলার রোডের জোনাকী সিনেমা হলের প্রবেশমুখে এই আয়োজন। ব্যাপার কী—জানতে চাই সিনেমা হলের অর্ধেক অংশের মালিক মো. তাজুল ইসলামের কাছে। তিনি বললেন, রমজানে যে দর্শক হয়, তাতে ইফতারির টাকাও ওঠে না। তাই এ মাসে সামনের জায়গাটুকু ভাড়া দিয়েছেন ইফতারি বিক্রেতাদের কাছে।

তবে ঈদের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে হল কর্তৃপক্ষ। এখন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন চারপাশ। প্রায় ৩০০ আসন নতুন করে সংযোজিত হয়েছে। ঈদে দর্শকদের আকর্ষণ করতে হবে তো। কথা হলো সিনেমার সার্বিক দিক নিয়ে। তাজুল ইসলামের কথায়, মাসে চারটি সিনেমাও তো মুক্তি পাচ্ছে না। হল টিকবে কী করে? রমজান মাসে দর্শক কম হয়। তারপরও সিনেমা হল চালু রাখতে হচ্ছে। এই শিল্পের এখনকার যা অবস্থা, সিনেমা না দেখালে দর্শক ভেবে নেবেন, হল বন্ধ হয়ে গেছে।

রাজমণি সিনেমা হলের নিরাপত্তারক্ষী আবদুসসাত্তার বলেন, প্রতিদিনই হল পরিষ্কার করা হয়। ঈদের জন্য বিশেষভাবে পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। ভেতরে ঢুকেও দেখা গেল বেশ ঝকঝকে তকতকে মেঝে। নির্বাহী মো. শহীদুল্লাহ বললেন, ঈদের জন্য প্রস্তুতি ভালো। নতুন ফ্যান লাগানো হয়েছে। আসনও করা হয়েছে ঠিকঠাক।

রমজানে বন্ধ মতিঝিলের মধুমিতা সিনেমা হল। বলাকাও তা–ই। ঈদের দিন বিশেষ প্রদর্শনীর মাধ্যমে প্রেক্ষাগৃহ দুটি খুলবে। অভিসার সিনেমা হলের সামনে যেতেই দর্শক ভেবে একজন টিকিট বাড়িয়ে দিলেন। কথা হয় গেটকিপার কাজী আবুল কালাম, মো. হাসান ও আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে। তাঁরা জানালেন, রাত ১১টার পরে সংস্কারকাজ চলে। ঈদ সামনে রেখে আসন, মেঝে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে। রমজানেও অভিসার খোলা ছিল। তবে দর্শক একেবারেই হাতে গোনা।

একই চিত্র দেখা গেল মিরপুরের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে। মিরপুর–১-এর সনি সিনেমা হলের স্টাফ আবদুসসামাদ বললেন, ‘প্রস্তুতি তো আর তেমন কিছু নয়। শুধু ধোয়ামোছা।’ ঈদ সামনে রেখে প্রস্তুত তাঁরা। টেকনিক্যাল মোড়ের কাছে এশিয়া সিনেমা হলেও চলছে ঈদের প্রস্তুতি।

Leave A Comment Here

comments

Check Also

বিপিএল ফাইনালে জায়েদ-পরী

পরীমণি ও জায়েদ খান অভিনীত ‘অন্তরজ্বালা’ বড় পর্দায় উঠবে আগামী ১৫ ডিসেম্বর। সবকিছু ঠিক থাকলে ...